এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভলপমেন্ট – একটি স্মার্ট ক্যারিয়ারের হাতছানি।

Share on facebook
Share on google
Share on twitter
Share on linkedin

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত মোবাইলের চাহিদা এবং জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর সেই সাথে বেড়ে চলেছে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল অ্যাপস এর ব্যবহার। বর্তমানে আমরা প্রায় প্রতিটি কাজেই (অনলাইন রিলেটেড) মোবাইল অ্যাপসের সহায়তা নিয়ে থাকি।

এই চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। যে কারণে অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমের চেয়ে, অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম যুক্ত মোবাইল গুলি অনেক বেশি পরিমাণে বিক্রয় হচ্ছে। এই ছোট্ট একটি পরিসংখ্যান থেকে অনুমান করা যায় যে, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে এন্ড্রয়েড ফোনই হবে সর্বাধিক ব্যবহৃত মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমের মধ্যে একটি।

সুতরাং, যত বেশি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত মোবাইলের গ্রাহক বৃদ্ধি পাবে ঠিক ততো বেশি মোবাইল অ্যাপস এর চাহিদাও বৃদ্ধি পাবে। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন যে, এই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ এর চাহিদা আমাগি ২-৩ বছরের মধ্যে আরো কি পরিমানে বৃদ্ধি পাবে। এবং এটা বাড়তেই থাকবে।

যেহেতু, বর্তমানে সবাই এখন স্মার্টফোন ব্যবহার করে। তাই এখানে রেভিনিউ জেনারেট করার পরিমান এবং সুজোগটাও সব থেকে বেশি। আপনি শুনলে অবাক হবেন যে, ২০১২ সালে এই অ্যাপ মার্কেটের ভ্যালু ছিলো মাত্র ১০ বিলিয়ন ইউ-এস-ডলার। আর মাত্র ৭ বছরের ব্যবধানে ২০১৯ সালে এসে বর্তমানে এর গ্রোথ প্রাই ১০০% শতাংশেরও বেশিতে রূপান্তরিত হয়েছে।

এখন যার মার্কেট ভ্যালু ১০০ বিলিয়নের থেকেও বেশি। এই মার্কেট ভ্যালুর ৫% ও যদি আমরা আমাদের নিজ দেশে আনতে পারি, তাহলে আমাদের দেশের বৈদেশিক মুদ্রার পরিমান ও বৃদ্ধি পাবে।

শুনতে একটু অবাক লাগলেও এই অর্থ নিজ দেশে আনতে পারাটা কঠিন কোন বিষয় নয়। দরকার সুধু সবার চেষ্টা + ধৈর্য। 

এই অ্যাপ ডেভলপমেন্ট সেক্টরটা অনেক বড় একটি সেক্টর। এখানে কাজের সুজগও আছে প্রচুর। এখানে আপনি নিজের জন্য কাজ করে যাবেন। এবং নিজের আজান্তেই দেশেরও উপকার হবে। 😀 একজন ফ্রিল্যান্সার হিসাবে এই সেক্টরে কাজ করা অন্যান্য পেশার থেকে অনেক বেশি সন্মান জনক এবং আর্থিক ভাবেও লাভ জনক।

এ ছাড়াও নিজের জন্য কাজ করার পাশাপাশি আপনি বিভিন্য প্রতিষ্ঠানের হয়েও কাজ করতে পারবেন। বর্তামানে প্রাই প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানের জন্যই মোবাইল অ্যাপ তৈরি করা হয়ে থাকে। ধরে নেয়া হয় যে, যাদের একটি কোম্পানি ওয়েবসাইট আছে তাদের একটি মোবাইল অ্যাপ থাকবেই।

বর্তমানে ইন্টানেটের মাধ্যমে সব কিছু হাতের নাগালে চলে আসায় প্রত্যেক বিজনেস ওনাররা চাই তাদের সব কিছু যেনো তারা মোবাইল বা ট্যাবের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রন করতে পারে। এ ক্ষেত্রে মোবাইল অ্যাপ সবার ক্ষেত্রে ভুমিকা রাখে।

প্রত্যেক বিজনের ওনার চাইবে সব কিছু যেনো দ্রুত এবং কম সময়ের মধ্যে মেনেজ হয়ে যায়। আর সেই সুবাদেই তারা সব কিছুর নিয়ন্ত্রন অ্যাপ এর মাধ্যমে করে থাকে।

এখন আপনি বলতে পারেন যে, সব কিছুই তো শুনলাম!! কিন্তু আমি যদি একজন প্রফেশনাল মানের অ্যাপ ডেভলপার হতে চাই তাহলে আমাকে কি কি করতে হবে? 

আপনি যদি একজন প্রফেশনাল অ্যাপ ডেভেলপার হিসেবে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই এই বিষয়ের উপরে কাজ শিখতে হবে। চাইলে আপনি সরাসরি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এডমিট হয়ে কাজ শিখতে পারেন।

আর যদি মনে করেন আপনি ঘরে বসেই কাজ শিখবেন, সে ক্ষেত্রে, চাইলে বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্ম আছে সেখান থেকে আপনি আপনার পছন্দের কোর্স টি বাছাই করে কাজ শেখা শুরু করে দিতে পারেন।

অ্যাপ ডেভেলপার হওয়ার জন্য আপনাকে যে সায়েন্স ব্যকগ্রাউন্ডএর স্টুডেন্ট হতে হবে এমন নয়। আপনি যে কোন ব্যকগ্রাউন্ডের স্টুডেন্ট হয়েও একজন ভালো মানের অ্যাপ ডেভেলপার হতে পারবেন।

কোথায় কাজ শিখবেন?

YouTube এবং Google এ প্রচুর পরিমানে ফ্রি রিসোর্স রয়েছে চাইলে আপনারা সেখান থেকে সার্চ করে বের করে নিতে পারবেন। তার পরেও আমি আপনাদের সুবিধার জন্য এখানে কিছু ফ্রি আর কিছু পেইড অনলাইন কোর্সের লিঙ্ক দিয়ে দিয়েছি। চাইলে এখানে থেকে নতুন হিসাবে ফ্রি কোর্স গুলো আপনি শেষ করতে পারেন। এতে করে আপনার বেজ আরো মজবুত হবে।

Free Course:

  1. Complete Android App Development course in Hindi (YouTube)
  2. Complete Android App Development Course In English (youTube)
  3. Complete Android App Development Course In Bangla (YouTube)

Paid Course:

  1. Complete Android App Development Course in English (Udemy)
  2. Complete Android App Development Course In Bangla (MsbAcademy)

এখানে আমি আপনাদের সুবিধার জন্য বেশ কিছু বাংলা ইংরেজি এবং হিন্দি ভিডিও টিউটোরিয়ালের লিঙ্ক দিয়েছি। যেগুলো থেকে আপনারা চাইলে খুব সহজেই ঘরে বসে আজ থেকে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট শেখা শুরু করে দিতে পারেন।

আপনি যদি আমাকে প্রশ্ন করেন যে, এই কোর্স গুলার মধ্যে কোনটাতে জয়েন করলে আপনার জন্য সব দিক থেকে ভালো হবে। আর আপনি প্রফেশনালি কাজ শুরু করে দিতে পারবেন। তাহলে আমি বলব MSBAcademy এর Complete Android App Development Master Class এর কোর্স টা করতে পারেন।

বাংলাদেশে আমার দেখা এই প্রথম কমপ্লিট অনালাইন এন্ড্রইয়েড অ্যাপ ডেভোলপমেন্ট কোর্স। যেখানে আছে সর্বমোট ৪৫ ঘন্টার বেশি ভিডিও টিউটোরিয়াল এবং সাথে পাচ্ছেন লাইফটাইম সাপোর্ট। সুতরাং সব দিক থেকে বিবেচনা করলে আমি বলব MSBAcademy এর Complete Android App Development Master Class এর কোর্সটি সব দিক থেকে বেষ্ট। কোর্সের সম্পর্কে আরো ডিটেইলস জানতে এবং প্রিভিউ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আজ এই পর্যন্তই 😀 লেখাটা যদিও একটু বড় হয়ে গিয়েছে। কিন্তু, তার পরেও আপনাদের সুবিধার জন্য একটু না হয় বড়ই করলাম 🙂

এই পোষ্ট সম্পর্কে আপনাদের যদি কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে আপনার কাঙ্খিত প্রশ্নটি করে ফেলুন।

ধন্যবাদ 🙂

3 thoughts on “এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভলপমেন্ট – একটি স্মার্ট ক্যারিয়ারের হাতছানি।”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Riad Mahmud

Riad Mahmud

Sign up for our Newsletter

Scroll to Top

start your project today